Home > ওয়াজ > বান্দার প্রতি আল্লাহর দয়া

বান্দার প্রতি আল্লাহর দয়া

مَنْ عَمِلَ سَيِّئَةً فَلَا يُجْزَى إِلَّا مِثْلَهَا

অর্থ: যে মন্দ কর্ম করে, সে কেবল তার অনুরূপ প্রতিফল পাবে,
সুরাঃ গাফের আয়াত: ৪০

নেকীর কাজটি করলে পুরস্কার।

নবীজি সা. বলেন, বান্দা যখন নেকীর কাজটি করে, তখন,

১. গুনাহ মাফ হয়।

আল্লাহ তা’য়ালা বলেন,

إِنَّ الْحَسَنَاتِ يُذْهِبْنَ السَّيِّئَاتِ ذَلِكَ ذِكْرَى لِلذَّاكِرِينَ

অর্থ: পূর্ণ কাজ অবশ্যই পাপ দূর করে দেয়, যারা স্মরণ রাখে তাদের জন্য এটি এক মহা স্মারক।
সুরাঃ হুদ আয়াত: ১১৪

عَنْ أَبِي هُرَيْرَةَ أَنَّ رَسُولَ اللَّهِ صلى الله عليه وسلم قَالَ ‏ الصَّلاَةُ الْخَمْسُ وَالْجُمُعَةُ إِلَى الْجُمُعَةِ كَفَّارَةٌ لِمَا بَيْنَهُنَّ مَا لَمْ تُغْشَ الْكَبَائِرُ

অর্থ: হযরত আবূ হুরাইরাহ রা. হতে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, পাঁচ ওয়াক্ত সালাত এবং এক জুমুআহ থেকে অন্য জুমুআহ এবং উভয়ের মধ্যবর্তী সময়ের সব গুনাহের জন্যে কাফফারাহ হয়ে যায় যদি সে কাবীরাহ গুনাহতে লিপ্ত না হয়।
সূত্র: সহিহ মুসলিম হাদিস: ২৩৩

২. আমল সমপরিমান নেকী অর্জন।

جَزَاء مِّن رَّبِّكَ عَطَاء حِسَابًا

অর্থ: এটা আপনার পালনকর্তার তরফ থেকে যথোচিত দান।
সুরাঃ নাবা আয়াত: ৩৬

৩. একটি আমলে ১০ টি নেকি অর্জন।

فَإِذَا عَمِلَ حَسَنَةً كَتَبَهَا صَاحِبُ الْيَمِينِ عَشْرًا

অর্থাৎ যদি বান্দা কোনো নেকীর কাজ করে, তাহলে ডান কাধের ফিরিস্তা ১০ টি নেকী লিখে দেয়।
সূত্র: তাফসীরে কুরতুবী খ: ৯ পৃ: ৮

৪. একটি আমলে ৭০০ নেকি অর্জন।

فَإِنْ عَمِلَهَا فَاكْتُبُوهَا لَهُ بِعَشْرِ أَمْثَالِهَا إِلَى سَبْعِ مِائَةِ ضِعْفٍ

অর্থাৎ (আল্লাহ তা’য়ালা ডান কাধের ফিরিস্তাকে বলে দেন,) তারপর যদি বান্দা নেকীর কাজটি করে, তবে তোমরা তার জন্য কাজটির দশ গুণ থেকে সাত’শ গুণ পর্যন্ত নেকী লেখো।
সূত্র: সহিহ বুখারী হাদিস: ৭৫০১

৫. একটা নেকির বিনিময় ১ হাজার নেকি অর্জন।

আবু উসমান নাহদী বলেন

بَلَغَنِي عَنْ أَبِي هُرَيْرَةَ أَنَّهُ قَالَ : بَلَغَنِي أَنَّ اللَّهَ – عَزَّ وَجَلَّ – يُعْطِي عَبْدَهُ بِالْحَسَنَةِ الْوَاحِدَةِ أَلْفَ أَلْفِ حَسَنَةٍ ،

সূত্র: মাজমাউয যাওয়ায়েদ হাদিস: ১৭১৮৮

৬. একটা নেকির বিনিময় ২ হাজার নেকি অর্জন।

( قَالَ فَقَضَى أَنِّيِ انْطَلَقْتُ حَاجًّا أَوْ مُعْتَمِرًا فَلَقِيتَهُ فَقُلْتُ : بَلَغَنِي عَنْكَ حَدِيثٌ ، أَنَّكَ سَمِعْتَ رَسُولَ اللَّهِ – صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ – يَقُولُ : إِنَّ اللَّهَ عَزَّ وَجَلَّ يُعْطِي عَبْدَهُ الْمُؤْمِنَ ، بِالْحَسَنَةِ أَلْفَ أَلْفَ حَسَنَةٍ ) ، فَقَالَ أَبُو هُرَيْرَةَ : لَا . بَلْ سَمِعْتُ رَسُولَ اللَّهِ – صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ – يَقُولُ : ” إِنَّ اللَّهَ – عَزَّ وَجَلَّ – يُعْطِيهِ أَلْفَيْ أَلْفِ حَسَنَةٍ ” . ثُمَّ تَلَا : ( يُضَاعِفْهَا وَيُؤْتِ مِنْ لَدُنْهُ أَجْرًا عَظِيمًا ) . فَقَالَ : إِذَا قَالَ اللَّهُ – عَزَّ وَجَلَّ : ( أَجْرًا عَظِيمًا ) فَمَنْ يَقْدُرُ قَدْرَهُ

সূত্র: মাজমাউয যাওয়ায়েদ হাদিস: ১৭১৮৮

অন্য রেওয়ায়োতে আসছে,
وَالَّذِي نَفْسِي بِيَدِهِ لَقَدْ سَمِعْتُ رَسُولَ اللَّهِ ﷺ يَقُولُ: “إِنَّ اللَّهَ يُضَاعِفُ الْحَسَنَةَ أَلْفَيْ أَلْفِ حَسَنَةٍ

৭. ওহুদ পাহাড় সমপরিমান

যেমন তোমরা গাভি ছোট থেকে বড় করো, তেমনি তোমার ছোট ছোট নেকি বড় করতেই থাকবো।

عَنْ أَبِي هُرَيْرَةَ قَالَ قَالَ رَسُولُ اللهِ صلى الله عليه وسلم مَنْ تَصَدَّقَ بِعَدْلِ تَمْرَةٍ مِنْ كَسْبٍ طَيِّبٍ وَلاَ يَقْبَلُ اللهُ إِلاَّ الطَّيِّبَ وَإِنَّ اللهَ يَتَقَبَّلُهَا بِيَمِينِهِ ثُمَّ يُرَبِّيهَا لِصَاحِبِهِ كَمَا يُرَبِّي أَحَدُكُمْ فَلُوَّهُ حَتَّى تَكُونَ مِثْلَ الْجَبَلِ

আবূ হুরাইরাহ্ (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, আল্লাহর রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেনঃ যে ব্যক্তি হালাল কামাই থেকে একটি খেজুর পরিমাণ সদাকাহ করবে, (আল্লাহ তা কবূল করবেন) এবং আল্লাহ কেবল পবিত্র মাল কবূল করেন আর আল্লাহ তাঁর ডান হাত [1] দিয়ে তা কবূল করেন। এরপর আল্লাহ দাতার কল্যাণার্থে তা প্রতিপালন করেন যেমন তোমাদের কেউ অশ্ব শাবক প্রতিপালন করে থাকে, অবশেষে সেই সদাকাহ পাহাড় বরাবর হয়ে যায়।
সূত্র: সহিহ বুখারী হাদিস: ১৪১০

এর উচ্চতা ১,০৭৭ মি (৩,৫৩৩ ফু)

١- [عن عائشة أم المؤمنين:] إنَّ اللهَ لَيُربِّي لأحدِكم التَّمرةَ واللُّقمةَ كما يُربِّي أحدُكم فَلُوَّه أو فصيلَه حتّى يكونَ مِثلَ أُحُدٍ
ابن حبان (ت ٣٥٤)، صحيح ابن حبان ٣٣١٧ • أخرجه في صحيحه • شرح رواية أخرى”

৮. সীমাহীন নেকী অর্জন।

فَأَمَّا الَّذِينَ آمَنُواْ وَعَمِلُواْ الصَّالِحَاتِ فَيُوَفِّيهِمْ أُجُورَهُمْ وَيَزيدُهُم مِّن فَضْلِهِ

অর্থ: অতঃপর যারা ঈমান এনেছে এবং সৎকাজ করেছে, তিনি তাদেরকে পরিপূর্ণ সওয়াব দান করবেন, বরং স্বীয় অনুগ্রহে আরো বেশী দেবেন।
সুরাঃ নিসা আয়াত: ১৭৩

وَمَنْ عَمِلَ صَالِحًا مِّن ذَكَرٍ أَوْ أُنثَى وَهُوَ مُؤْمِنٌ فَأُوْلَئِكَ يَدْخُلُونَ الْجَنَّةَ يُرْزَقُونَ فِيهَا بِغَيْرِ حِسَابٍ

অর্থ: আর যে, পুরুষ অথবা নারী মুমিন অবস্থায় সৎকর্ম করে তারাই জান্নাতে প্রবেশ করবে। তথায় তাদেরকে বে-হিসাব রিযিক দেয়া হবে
সুরাঃ গাফের আয়াত: ৪০

Check Also

মৃত্যুর বয়ান

كُلُّ نَفۡسࣲ ذَاۤئقَةُ ٱلۡمَوۡتِۖ ثُمَّ إِلَیۡنَا تُرۡجَعُونَ আনকাবুত, আয়াত: ৫৭ …নাস্তিকরা মৃত্যু অম্বীকার করে না। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.