ই’তিকাফ অবস্থায় সহবাস করা যাবে না।

ই’তিকাফ অবস্থায় সহবাস করলে ইতিতাফ নষ্ট হয়ে যাবে। এব্যাপারে হানাফী মাযহাবের গ্রহনযোগ্য কিতাব আল মাবসুতের মধ্যে আসছে,

وإذا جامع المعتكف امرأته في الفرج فسد اعتكافه سواء جامعها ليلا أو نهارا ناسيا كان أو عامدا أنزل أو لم ينزل

অর্থাৎ ইতিকাফকারী ব্যক্তি যদি স্ত্রীর লজ্জাস্থানে সহবাস করে তাহলে তার ইতিকাফ নষ্ট হয়ে যাবে। চাই এটা সে দিনে করুক বা রাতে, ইচ্ছায় কিংবা অনিচ্ছায়, বীর্যপাত হোক বা না হোক। (সর্বাবস্থায় ইতিকাফ ভঙ্গ হয়ে যাবে।)
সূত্র: আল মাবসুত (সারাখসী) খ. ৩ পৃ. ১২৩

কারণ আল্লাহ তা’আলা বলেন,

وَلاَ تُبَاشِرُوهُنَّ وَأَنتُمْ عَاكِفُونَ فِي الْمَسَاجِدِ

অর্থ: আর যতক্ষণ তোমরা এতেকাফ অবস্থায় মসজিদে অবস্থান কর, ততক্ষণ পর্যন্ত স্ত্রীদের সাথে মেলামেশা করো না।
সুরা বাকারা আয়াত: ১৮৭

Check Also

ইমাম সাহেবের হুজরায় যেতে পারবে কি না?

إن خرج من غير عذر ساعة فسد اعتكافه অর্থাৎ কোনো প্রয়োজন ছাড়া যদি ইতিকাফকারী ব্যক্তি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.