ইমাম সাহেবের হুজরায় যেতে পারবে কি না?

إن خرج من غير عذر ساعة فسد اعتكافه

অর্থাৎ কোনো প্রয়োজন ছাড়া যদি ইতিকাফকারী ব্যক্তি মসজিদ থেকে বের হয়, তাহলে তার ই’তিকাফ নষ্ট হয়ে যাবে। (চাই দিনে বা রাতে ইচ্ছায় বা অনিচ্ছায় যেভাবেই বের হোক না কেন।)
সূত্র: ফাতাওয়া হিন্দিয়া খ. ১ পৃ. ২১২

ان ركن الاعتكاف وهو اللبث
সূত্র: আল মাবসুত খ. ২ পৃ. ১২২

عَنْ عَائِشَةَ، أَنَّهَا قَالَتْ: ” السُّنَّةُ عَلَى الْمُعْتَكِفِ: أَنْ لَا يَعُودَ مَرِيضًا، وَلَا يَشْهَدَ جَنَازَةً، وَلَا يَمَسَّ امْرَأَةً، وَلَا يُبَاشِرَهَا، وَلَا يَخْرُجَ لِحَاجَةٍ، إِلَّا لِمَا لَا بُدَّ مِنْهُ، وَلَا اعْتِكَافَ إِلَّا بِصَوْمٍ، وَلَا اعْتِكَافَ إِلَّا فِي مَسْجِدٍ جَامِعٍ

আয়িশাহ্ (রাঃ) সূত্রে বর্ণিত। তিনি বলেন, ই‘তিকাফকারীর জন্য সুন্নাত হলোঃ সে কোনো রোগী দেখতে যাবে না, জানাযায় অংশগ্রহণ করবে না, স্ত্রীকে স্পর্শ করবে না, তার সাথে সহবাস করবে না এবং অধিক প্রয়োজন ছাড়া বাইরে যাবে না, সওম না রেখে ই‘তিকাফ করবে না এবং জামে মসজিদে ই‘তিকাফ করবে।
সূত্র: সুনানে আবু দাউদ হাদিস: ২৪৭৩

Check Also

মসজিদের বারান্দায় যেতে পারবে কি না?

  যাবে। যদি উক্ত বারান্দা মূল মসজিদের অন্তর্ভূক্ত হিসেবে ধর্তব্য হয়। অর্থাৎ মসজিদ নির্মাণের সময় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.